সোলাপুর, ৬ বৈশাখ, ১৮৮৯


 

  প্রকাশবেদনা


আপন প্রাণের গোপন বাসনা

  টুটিয়া দেখাতে চাহি রে--

হৃদয়বেদনা হৃদয়েই থাকে,

  ভাষা থেকে যায় বাহিরে।

শুধু কথার উপরে কথা,

  নিষ্ফল ব্যাকুলতা।

বুঝিতে বোঝাতে দিন চলে যায়,

  ব্যথা থেকে যায় ব্যথা।

মর্মবেদন আপন আবেগে

  স্বর হয়ে কেন ফোটে না?

দীর্ণ হৃদয় আপনি কেন রে

  বাঁশি হয়ে বেজে ওঠে না?

আমি চেয়ে থাকি শুধু মুখে

  ক্রন্দনহারা দুখে--

শিরায় শিরায় হাহাকার কেন

  ধ্বনিয়া উঠে না বুকে?

অরণ্য যথা চিরনিশিদিন

  শুধু মর্মর স্বনিছে,

অনন্ত কালের বিজন বিরহ

  সিন্ধুমাঝারে ধ্বনিছে--

যদি ব্যাকুল ব্যথিত প্রাণ

  তেমনি গাহিত গান

চিরজীবনের বাসনা তাহার

  হইত মূর্তিমান!

তীরের মতন পিপাসিত বেগে

  ক্রন্দনধ্বনি ছুটিয়া

হৃদয় হইতে হৃদয়ে পশিত,

  মর্মে রহিত ফুটিয়া।

আজ    মিছে এ কথার মালা,

  মিছে এ অশ্রু ঢালা!

কিছু নেই পোড়া ধরণীমাঝারে

  বোঝাতে মর্মজ্বালা!

 

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •